Ads by Priyotunes- pAds

Download audios, videos and many more

Ads by Priyotunes- pAds

free domain

প্রিয়টিউনস টিউনার 2

1286 টিউন

প্রিয়টিউনস প্রিয়টিউনস 2
অনলাইনে ব্যবসাঃ কিভাবে হোস্টিং ব্যবসা শুরু করবেন?

10 মাস, 6 দিন, 19 ঘন্টা, 30 মিনিট আগে :: 11 January, 2017 06:39 PM

...

Sponsored Tunes Ads by Priyotunes- pAds

অনলাইনে ব্যবসাঃ কিভাবে হোস্টিং ব্যবসা শুরু করবেন?

টিউন করেছেন : প্রিয়টিউনস টিউনার 2 | প্রকাশিত হয়েছে : 10 মাস, 6 দিন, 19 ঘন্টা, 30 মিনিট আগে :: 11 January, 2017 06:39 PM | |

Ads by Priyotunes- pAds

Free Domain


অনলাইনে অনেকগুলো সলিড বিজনেস আইডিয়া এর মধ্যে ওয়েবসাইট তৈরি, ডোমেইন ও হোস্টিং বিক্রয় অন্যতম। বর্তমান সময়ে অনেকেই হোস্টিং ব্যবসার প্রতি আগ্রহী। তাই অনেকেই আমাদেরকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করে থাকেন। সবার মনে রাখতে হবে ওয়েব হোস্টিং ব্যবসা দ্রুত বড় লোক হওয়ার কোন রাস্তা নয়। প্রচুর ধৈর্য এবং কম্পিউটার এবং টেকনিক্যাল জ্ঞান থাকতে হবে। সলিড ও সাকসেসফুল হোস্টিং কোম্পানি হওয়ার জন্য অবশ্য কম্পিউটার সাইন্স ব্যাকগ্রাউন্ড হতে হবে। তবে অন্য ব্যাকগ্রাউন্ডের মানুষ ও যদি কম্পিউটার এবং টেকনিক্যাল জ্ঞান থাকে, এই ব্যবসায় সফল হতে পারে। তবে দরকার প্রচুর ধৈর্য ও চেষ্টা।

হোস্টিং ব্যবসা শুরুর আগের প্রস্তুতি-

এই ব্যবসা শুরু করার আগে নিজেকে কিছু প্রশ্ন করুন।

১) আপনি কত সময় এই ব্যবসার পেছন ব্যয় করবেন?

– প্রত্যেক গ্রাহক চায় ২৪ ঘণ্টা সাপোর্ট। এবং ব্যবসায় সফল হওয়ার পিছনে এটি একটি বড় ফ্যাক্টর। তাই নিজেকে আগে প্রশ্ন করুন আপনি গ্রাহককে ২৪ ঘণ্টা টেকনিক্যাল সাপোর্ট দিতে পারবেন কি না।

২) হোস্টিং সফটওয়্যার এবং হোস্টিং টেকনোলজি সম্পর্কে আপনার জ্ঞান কতটুকু?

– হোস্টিং ব্যবসা শুরু করার আগে হোস্টিং সফটওয়্যার ও সার্ভার সম্পর্কিত প্রয়োজনীয় জ্ঞান লাভ করেছেন কি? এ বিষয়ে যদি প্রয়োজনীয় জ্ঞান না থাকে তাহলে আপনি হোস্টিং ব্যবসা করতে পারবেন না। তাই অবশ্যই এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় জ্ঞান থাকতে হবে।

৩) আপনি এই ব্যবসায় কত টাকা বিনিয়োগ করতে চাচ্ছেন?

– আপনি কত টাকা বিনিয়োগ করতে চাচ্ছেন তা ঠিক করুন। হোস্টিং ব্যবসার জন্য লাগবে একটা ডোমেইন, হোস্টিং, ওয়েব সাইট, বিলিং সফটওয়্যার, মার্কেটিং এর বাজেট ইত্যাদি।

৪) আপনি কি Employee নিয়োগ দিবেন?

– আপনি ঠিক করুন একাই ব্যবসা চালু করবেন নাকি Employee নিবেন। যদি একাই চালু করেন তাহলে আপনাকে একাই সেলস, টেকনিক্যাল সাপোর্ট দিতে হবে এবং আপনার খরচ কম হবে। তবে আপনার সময় বেশি ব্যয় হবে।

হোস্টিং ব্যবসার জন্য প্রয়োজনীয় রিসোর্স-

১) ডোমেইন (ব্যবসার নাম)

প্রথমেই আপনাকে হোস্টিং ব্যবসার জন্য সুন্দর একটি নাম ঠিক করে নিতে হবে। ডোমেইন পছন্দ বিষয়ক সাজেশনের জন্য এই লিংকটি দেখতে পারেন।

২) ওয়েব সাইট

– ওয়েব হোস্টিং ব্যবসা করতে হলে অবশ্যই আপনার একটা ওয়েব সাইট লাগবে। কারণ আপনার ব্যবসাটা নিয়ন্ত্রিত হবে এই ওয়েব সাইট থেকেই। আপনি যদি নিজেই ওয়েব ডিজাইনার হন তাহলে নিজেই নিজের সাইট ডিজাইন করে নিতে পারেন। তাহলে আপনার খরচ কিছুটা কমবে। আর ডিজাইনার না হলে ওয়েব ডিজাইন করিয়ে নিতে পারেন যেকোন কোম্পানি হতে। খরচ পড়বে ২০০-১০০০ ডলার। অথবা আপনি চাইলে রেডিমেড ডিজাইন কিনে নিতে পারেন। খরচ পড়বে ২০-২০০ ডলার। ডিজাইন অনন্য ও হতে পারে আবার নাও হতে পারে। কম বাজেট হলে ডিজাইন অনন্য হবে না। আমি সব সময় অনন্য ডিজাইন সাজেস্ট করি। কারণ একই ডিজাইন একাধিক সাইট ব্যবহার করলে এবং একই ভিজিটর দুটি সাইট ব্যবহার করলে বিভ্রান্তিতে পড়তে পারে। এবং অনেকেই মনে করতে পারে ডিজাইনটা কপি করা হয়েছে।

৩) বিলিং সফটওয়্যার

– হোস্টিং ব্যবসার জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় হচ্ছে বিলিং সফটওয়্যার। বিলিং সফটওয়্যার থাকলে আপনার সব কিছু হবে অটোমেশন। এতে আপনার ব্যবসার হিসাব রাখতে সুবিধা এবং পেমেন্ট অটোমেশন সুবিধা যোগ করলে গ্রাহক পে করার সাথে সাথে গ্রাহকের হোস্টিং অ্যাকাউন্ট তৈরি হয়ে ইমেইলে ইনফো চলে যাবে। তাই অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে আপনাকে ঝামেলা পোহাতে হবে না। এই বিলিং সফটওয়্যার আপনি যারা রিসেলার হোস্টিং/ভিপিএস/ডেডিকেটেড সার্ভারের সাথে ফ্রি দেয় তাদের থেকে পেতে পারেন অথবা বিলিং সফটওয়্যার ভেন্ডার সাইট থেকে ও কিনতে পারেন।

যদি সফটওয়্যার কিনেন তাহলে খরচ পড়বে মান্থলি লাইসেন্সের ক্ষেত্রে ১৩-১৬ ডলার। অথবা এককালীন টাকা দিয়ে কিনে নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে ২৫০-৩৫০ ডলার


Billing Software Recommendations:

http://www.whmcs.com – The #1 rated billing management software.

http://www.clientexec.com – A very close match with WHMCS, in my opinion the design is much nicer and admin control panel is more user-friendly.

৪) রিসেলার হোস্টিং/ভিপিএস/ডেডিকেটেড সার্ভার

হোস্টিং ব্যবসা করার জন্য আপনি রিসেলার হোস্টিং, ভিপিএস অথবা ডেডিকেটেড সার্ভার কিনতে পারেন। হোস্টিংয়ের প্রকারভেদ এবং পার্থক্য জানতে চাইলে ই লেখাটি দেখতে পারেন।

হোস্টিং কেনার আগে এই লেখাটি দেখতে পারেন।

মার্কেটে রিসেলার হোস্টিং প্যাকেজ ৫-৫০ জিবি পর্যন্ত দেখা যায়। এবং দাম ৩৫০০-২৫০০০ টাকা বছর। সেবার মানের উপর নির্ভর করে এসব মূল্য।

ভিপিএস কিনলে মাসে যাবে ৪০০০-৫০০০ টাকা।

ডেডিকেটেড সার্ভার ১৫০০০-২৫০০০ টাকা মাস।

৫) অফিস

আপনি ব্যবসা চাইলে বাসায় বসেও করতে পারেন। অথবা অফিস স্পেস ভাড়া ও নিতে পারেন। শুরুতেই গ্রাহক তেমন একটা থাকবে না তাই বাসা থেকেই ব্যবসা পরিচালনা করতে পারেন। যদি অফিস ভাড়া নেন তা এলাকা ভেদে ভাড়ার তারতম্য হবে। ভাড়া ১০-২০ হাজার টাকা হতে পারে প্রতিমাসে। আর ডেকোরেশন ৫০ হাজার ১.৫ লাখ পর্যন্ত হতে পারে। এটা নির্ভর করবে আপনি কি ধরণের ডেকোরেশন করবেন তার উপর। আর অফিস ভাড়া নেয়ার সময় এডভান্স পে করতে হয়। তা এলাকা ভেদে ও ভিন্ন, তবে তা ৫০ হাজার-১.৫ লাখের ভিতরে হবে।

৬) মার্কেটিং প্লান

গ্রাহক পাবার জন্য অনলাইন এবং অফলাইন দুই ভাবেই মার্কেটিং করতে হবে।

অনলাইন মার্কেটিং-

বিভিন্ন ফোরামে যোগদান করে আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে পারেন। সিগনেচারে আপনার সার্ভিস সম্পর্কে সংক্ষেপে লিখে লিংক করে দিতে হবে। অনলাইনে জনপ্রিয় বাংলা ফোরাম হচ্ছে

http://forum.projanmo.com/index.php

এছাড়াও বিভিন্ন জনপ্রিয় বাংলা ব্লগগুলোত বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। আর ফেসবুক অ্যাড, গুগল অ্যাডওয়ার্ডের মাধ্যমে ও বিজ্ঞাপন দেয়া যেতে পারে। বিদেশী ফোরামে বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে

http://www.webhostingtalk.com

http://www.freewebspace.net/forums

এই দুটি সাইটে প্রতি সপ্তাহে একবার করে বিজ্ঞাপন টিউন করা যায়। এছাড়া প্রিমিয়াম মেম্বার হলে প্রতি ৬ দিন পর পর, আর কর্পোরেট মেম্বার হলে প্রতি ৩ দিন অন্তর অন্তর বিজ্ঞাপন টিউন করা যাবে। মেম্বারশীপ রেট http://www.webhostingtalk.com/memberships/ এই লিংক থেকে জেনে নিতে পারেন।

অফলাইন মার্কেটিং-

কম্পিউটার ম্যাগাজিন, পত্রিকা ইত্যাদিতে প্রতি মাসে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। এতে খরচ প্রতি মাসে ৩৫০০-১৫০০০ পর্যন্ত হতে পারে।

এছাড়া আপনার পরিচিতদের মাঝে আপনার হোস্টিং সার্ভিস সম্পর্কে বলতে পারেন। এছাড়া কয়েকজনকে ফ্রি সার্ভিস দিয়ে আপনার সার্ভিস সম্পর্কে তার মতামত দিতে অনুরোধ করতে পারেন। প্রথম দিকের গ্রাহকদের খুশি করতে পারলেই পরে তাদের রেফারেন্সে অনেক গ্রাহক পাওয়া যাবে।

আপনার যদি একমাত্র উদ্দেশ্য থাকে হোস্টিং ব্যবসা করা। তাহলে ২৪ঘন্টা সাপোর্ট দেয়াটা জরুরী। ২৪ ঘণ্টা সাপোর্টের জন্য মিনিমাম ২ জন লোক লাগবে। এবং তা ভিন্ন ভিন্ন টাইমজোনে দুইজনকে কাজ করতে হবে।

রিসেলার হোস্টিং এবং সাথে বিলিং সফটওয়্যার থাকলে বছরে প্রায় ২০-২৫ হাজার টাকা খরচ হবে। আর ওয়েব সাইট ডিজাইনের খরচ যদি রেডিমেড টেম্পলেট এবং ইউনিক না হয় তাহলে ২০-৬৫ ডলারে ভাল ডিজাইন পেতে পারেন।

 

রিসেলার হোস্টিং নিয়ে ব্যবসা শুরু করতে চাইলে আমাদের প্যাকেজগুলো দেখতে পারেন। যেকোন প্রশ্ন টিউমেন্টে করতে পারেন।

টিউনটি সংগ্রহ করা হয়েছে টেকটিউনস থেকে। টিউনটি লিখেছেন হোস্টপেয়ার এলএলসি

প্রিয় টিউনসে যুক্ত কর

নির্বাচিতটিউন মনোনয়ন


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *